27 Sep 2017   05:53:02 PM   Wednesday   BdST

সম্ভাবনার আলো ছড়াতেই দৈনিক ‘জাগো বাংলা’

নিজস্ব প্রতিবেদক: সম্ভাবনার আলো ছড়াতেই নিত্যদিন সূর্য ওঠে। আলোর পরশেই আঁধার উবে যায়। আর সম্ভাবনার এ আলোতে ভর করেই মানুষ সত্য ও সুন্দরের পূজারি হয়, যা সত্য তাই সুন্দর। সত্য আর সুন্দরের রূপায়ণেই মানুষ তার মননের রূপ দেয়।

 

সত্য ও সুন্দরের আলোতে হাজারও সম্ভাবনার কথা মেলে ধরতেই যাত্রা শুরু করল প্রকাশিতব্য দৈনিক জাগো বাংলা পত্রিকার অনলাইন ভার্সন। সম্ভাবনার পথ ধরে মানুষকে এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয় নিয়েই জাগো বাংলার এ অগ্রযাত্রা। একই সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার প্রচেষ্টায় শরিক হওয়ার প্রত্যয়ও রয়েছে দৈনিকটির।

 

বুধবার বিকেল ৪টায় জাগো বাংলার অনলাইন ভার্সনের উদ্বোধন করেন প্রকাশক চৌধুরী কামরুজ্জামান।

 

প্রতীক্ষণে বদলে যাচ্ছে পৃথিবী। বদলে যাচ্ছে মানুষের চিন্তার জগৎও। মানুষের চিন্তা বদলায় বলেই দুনিয়া বদলায়। গতিশীল পৃথিবীর সঙ্গে তাল মিলিয়েই মানুষ তার স্বপ্ন দেখে। আর স্বপ্নের সিঁড়ি মাড়িয়ে বাস্তবের জমিনে ফসল ফলায় উদ্যমীরা। এমন হাজারও স্বপ্নের কথা জানাতেই দৈনিক জাগো বাংলার পথচলা।

 

সংবাদের পেছনের সংবাদ খুঁজতেই পত্রিকাটির যাত্রা। একটি ঘটনা হাজারও সংবাদের জন্ম দেয়। সংবাদের পেছনে সংবাদ থাকে। তবে নেতিবাচক সংবাদের প্রচলিত ধারণা থেকে মানুষ নিজেকে সরিয়ে নিচ্ছে। সরিয়ে নিচ্ছে গণমাধ্যমও। অস্থির সমাজে স্থিরতা আনতেই হয়তো চিন্তাশীল মানুষের মননের এ পরিবর্তন। সচেতন মানুষ ইতিবাচক সংবাদে তৃপ্ত। দুঃখগাথা নয়, সুখের সংবাদ পাঠেই পাঠক সুখি হতে চায়। আর সব ইতিবাচক সংবাদের বাতাবরণ নিয়েই পাঠকের হৃদয়ে ঠাঁই পেতে চায় জাগো বাংলা।

 

প্রযুক্তি-ই জ্ঞান। প্রযুক্তির ছোঁয়া সর্বত্রই। সূর্য যেমন আলোকবর্ষ গতিতে কিরণ ছড়ায়, প্রযুক্তির গতি তারও বেশি। প্রযুক্তির দখলে যে সমাজ বেশি কর্তৃত্ব দেখায়, তারাই দুনিয়া দখলের সাড়া পায়। এমন কর্তৃত্ব ঠিক গণমাধ্যমের ক্ষেত্রেও। প্রযুক্তির মাধ্যমেই গণমাধ্যম দ্রুততম সময়ে তথ্যসমূহ অধিকসংখ্যক পাঠকের দ্বারে পৌঁছে দিচ্ছে। আর প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করেই জাগো বাংলা পাঠকের দ্বারে নাড়া দিতে চায়। সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ছোঁয়া মিলবে দৈনিকটির প্রিন্ট ও অনলাইন ভার্সনে।

 

এক ঝাঁক তারুণ্যের যুগপৎ কর্মস্পৃহার প্রতিচ্ছবি মিলবে জাগো বাংলায়। তারুণ্যের জয় দুনিয়াজুড়ে। তারুণ্যের জয়যাত্রা গণমাধ্যমেও। তারুণ্যনির্ভর গণমাধ্যমই প্রতিযোগিতার দৌড় বাড়িয়ে দিচ্ছে। এমন প্রতিযোগিতা আমলে নিয়েই দৈনিক জাগো বাংলা তারুণ্য বান্ধবনীতি গ্রহণ করেছে। তরুণ সংবাদকর্মীরাই পত্রিকাটির প্রাণ। দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রি নেয়া এবং গণমাধ্যমের বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফলতার সাক্ষর রাখা এসব তরুণ সংবাদকর্মীর দৃঢ় প্রত্যয়েই পত্রিকাটির পাঠকের মন জয়ের প্রয়াস।

 

জাগো বাংলার অনলাইন ভার্সনের উদ্বোধনকালে প্রকাশক চৌধুরী কামরুজ্জামান বলেন, মিডিয়া জগতের নানা সম্ভাবনা আর চ্যালেঞ্জের কথা। তিনি বলেন, আমরা ইতিবাচক সংবাদে বিশ্বাসী। যেখানে সুন্দর, সেখানেই জাগো বাংলা।

 

তিনি সব চ্যালেঞ্জ পায়ে মাড়িয়ে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, তরুণ কর্মীরাই এ প্রতিষ্ঠানের প্রাণ। সংবাদ সংগ্রহ এবং তা প্রকাশে যেকোনো চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে প্রতিজন সংবাদকর্মী প্রস্তুত বলে আমি বিশ্বাস করি।

বস্তুনিষ্ঠ এবং জনকল্যাণমূলক সংবাদের ওপর গুরুত্ব দিয়ে তিনি বলেন, নেতিবাচক সংবাদ দিয়ে আমরা কোনো প্রতিযোগিতা করতে চাই না। আমরা মানবিক এবং জনস্বার্থ সংশ্লিষ্ট ইতিবাচক সংবাদ পরিবেশন করে পাঠকের জয় করতে চাই। 

 

দৈনিকটির সম্পাদক সুজন মাহমুদ বলেন, গণমাধ্যম-ই পারে একটি সমাজের ইতিবাচক পরিবর্তন ঘটাতে। একটি সংবাদ মাধ্যমে প্রতিজন মানুষ তার নিজের চেহারা দেখতে পায়। আমরা মানবিক সমাজকে তুলে ধরব। সমাজ, রাজনীতি, অর্থনীতি, খেলা, বিনোদনসহ সংবাদের সব ক্ষেত্রে তীক্ষ্ণ নজর এবং বিচক্ষণতার পরিচয় দিতেই জাগো বাংলার শত প্রয়াস থাকবে।

 

পথচলার এ মেলবন্ধনে পাঠককেও সারথী করতে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন তিনি। ‘সত্যকে সত্য আর মিথ্যাকে মিথ্যা’ বলার আওয়াজ তুলেই জাগো বাংলার পথচলা শুরু বলে উল্লেখ করেন জাগো নিউজের প্রধান বার্তা সম্পাদক মহিউদ্দিন সরকার।

 

তিনি বলেন, গণমাধ্যমের কাঠামো বা রূপরেখা নিত্যদিন পরিবর্তন হচ্ছে। আমরা সেই পরিবর্তনের ধারায় নিজেদের মেলে ধরতে চাই। পাঠকের সাড়া পেতে পত্রিকার প্রিন্ট ভার্সন এবং অনলাইন ভার্সনে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিত করা হয়েছে।

 

জাগো নিউজের প্রধান প্রতিবেদক মনিরুজ্জামান উজ্জ্বলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে জাগো নিউজের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক কে এম জিয়াউল হক, জাগো নিউজের সহকারী সম্পাদক ড. হারুন রশীদ, ফিচার এডিটর আরিফুল ইসলাম আরমানসহ জাগো নিউজের বিভিন্ন বিভাগীয় প্রধান ও নিউজ পোর্টালটির অন্যান্য সংবাদকর্মী উপস্থিত ছিলেন।