28 Mar 2014   12:53:48 AM   Friday   BdST

শুভ্রা নীলাঞ্জনার ভালোবাসার মানুষকে চিঠি

প্রিয় ছন্নছাড়া,

আজ থেকে তোমায় ভালো রাখার, ভালোবাসার দায়িত্ব আমার। স্ব-ইচ্ছায় নিজের করে নিলাম। ফুলপরী যেমন ভালোবাসে ফুলকে, আমি তোমাকে। আমাকে এ ভালোবাসে ও এত্ত খানি ভালোবাসে এই গুলি বলার আর কোন অবকাশ নেই তোমার। বাড়ি বাড়ি গিয়ে বলে এসো দুখি দুখি মুখ করে তুমি আর তোমার নেই। তুমি আর অন্যেরও নেই সবাইর ও নেই। তোমার সার্বজনীন হওয়ার সময় শেষ। ওদের বলে দাও সব কাজ সেরে অবসরে তোমাকে কষ্ট করে ভালোবাসার অংশীদার করতে হবে না আর। এখন থেকে সব ভালোবাসার একছত্র আধিপত্য আমার। আমার স্বৈরাচারী ভালোবাসায় ভাসাব তোমায়।

বোকা তুমি সবাই যে, প্রয়োজনে তোমাকে ব্যাবহার করে, যখন সময় কাটে না তখন তোমাকে অবসরের সঙ্গী করে তুমি বুঝনা। তুমি ভেবে নাও সবাই তোমাকে ভালোবাসে। তোমাকে কেউ কল করে না মিস কল দেয়। তুমি সব কাজ ফেলে ফোন ব্যাক কর। সবার কাজের সময় তোমার কথা মনে পড়ে। তোমার সরলতাকে ভাবে দুর্বলতা। তুমি এতো ভালো কেন? তোমার ভালোমানুষি দেখে আমি কষ্ট পাই। তুমি কি কিছু বুঝ ? বুঝ না ?

আমি তো কিছু চাইনা তোমার কাছে। আমি চাই ভিতর থেকে একটা সৎ মানুষ। সত্যিকারের একটা ভালো মানুষ। যে শুধু আমাকেই ভালোবাসবে। বিশ্বাস শুধু আমাদের ছুঁয়ে থাকবে। আমাকে দেখেই তার রাত্রি প্রভাত হবে। আমাকে দেখেই তার রাত নামবে। তাই বলি আজ থেকে তোমার ভালো মানুষ হওয়ার দিন শেষ। সবাইকে বলে দেও তোমার আর সময় নেই । এই তুমি অন্য তুমি। এই তুমি আমার তুমি।

আমি তোমাকে শেখাব ভালোবাসার অহংকার। আমি তোমাকে দেখাব নিঃস্বার্থ ভাবে একটা মানুষ ভালোবেসে তলিয়ে যাওয়া মানুষকে কি ভাবে আবার মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার সাহস যোগাতে পারে। আমি তোমাকে স্বপ্ন দিব। আমি তোমাকে এনে দিব তোমার আকাঙ্খিত সোনালী জীবন। যে জীবন ছিল তোমার কল্পনার ও বাইরে। এই হতাশার তুমি নুতন করে আবার ঘুরে দাঁড়াবে । এই অবহেলিত তুমি হবে সবার ঈর্ষার তুমি। কথা দিলাম।

ইতি
লক্ষ্মী মেয়ে